Saturday, August 18, 2018

এই গরমে ঘামের দুর্গন্ধ



এই গরমে শরীরে ঘামের দুর্গন্ধ নিয়ে অনেকেই বিব্রত হন। বাইরে গেলে শরীর ঘামবেই। ঘামের আসলে নিজস্ব গন্ধ নেই। ত্বকের ওপর লেগে থাকা ঘামে একধরনের ব্যাকটেরিয়ার উৎপত্তি হয় বলে এই দুর্গন্ধ হয়। তাই দুর্গন্ধ থেকে বাঁচতে শরীরে ঘাম যাতে না লেগে থাকে, তার ব্যবস্থা করা।

■ গরমে আঁটসাঁট ও কৃত্রিম তন্তুর পোশাক পরলে ঘাম হবে বেশি। পাতলা সুতির ও ঢিলে পোশাক পরুন, যাতে বাতাস চলাচল করতে পারে। এতে শরীর ঘামে ভিজে না।

■ যতটা সম্ভব প্রচণ্ড রোদ, গরম এড়িয়ে চলুন। গুমোট পরিবেশে না থেকে হাওয়া-বাতাস, ফ্যান বা এসি আছে—এমন জায়গায় কাজ করুন।

■ ঘেমে গেলে কাপড় পরিবর্তন করুন। এই গরমে প্রতিদিনকার পোশাক ধুয়ে পরা উচিত। পায়ের মোজা ও অন্তর্বাস বিশেষ করে আগের ব্যবহার করাটা পরবেন না।

■ প্রতিদিন গোসল করুন। শরীরের ভাঁজগুলোতে এন্টিব্যাকটেরিয়াল সোপ ঘষতে পারেন। তবে সাবান দিয়ে সব সময় ঘষতেই হবে এমন কথা নেই, পানির ধারায় নিজেকে পরিষ্কার করুন।

■ অ্যালুমিনিয়াম ক্লোরাইডের মিশ্রণ চিকিৎসকের পরামর্শে ব্যবহার করা যায়। অনেক এন্টিপারসপিরেন্ট ও ডিওডোরেন্টে এ উপাদান দেওয়া থাকে। ত্বক পরিষ্কার করার পর এটি ব্যবহার করা যায়।

■ মসলাযুক্ত খাবার, কফি, অ্যালকোহল ঘাম বাড়াবে। গরমে এগুলো কম খাওয়া ভালো।

■ মোটা মানুষদের ঘাম বেশি হয়। ওজন কমান। কৈশোরের শুরুতে ঘামে দুর্গন্ধ বাড়ে। এটি হরমোনের প্রভাব। এ নিয়ে দুশ্চিন্তার কিছু নেই।
Previous Post
Next Post
Related Posts

0 comments: